Mukutmanipur Travel Guide

Mukutmanipur Travel Guide

Mukutmanipur Travel Guide : Weekend destination near Kolkata

দেখে আসুন মুকুটমনিপুর



ভারতের এক প্রাচীন শহরের রাজা, তাঁর অত্যন্ত প্রিয় রানী মুকুটমনির নামেই জায়গার নাম রাখলেন। সেই শহরের নাম অম্বিকানগর। আর জায়গাটির নাম হল মুকুটমনিপুর।

হ্যাঁ, আমি বাঁকুড়ার মুকুটমনিপুরের কথাই বলছি। কংসাবতী আর কুমারী নদীর সঙ্গমস্থলে অবস্থিত, যেখানে আছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মনুষ্য নির্মিত মাটির বাঁধ। কংসাবতী সেচ ও জলবিদ্যুৎ প্রকল্প।

Mukutmanipur, one of the popular tourist destination of Bankura,is a popularly known as weekend destination near kolkata,

Mukutmanipur Dam

যাওয়ার উপায় কি কি ঃ

ট্রেনে করে গেলে নিকটবর্তী রেল স্টেশন হল বাঁকুড়া। হাওড়া ও সাঁতরাগাছি থেকে ট্রেন পাবেন। অথবা একটু দূর হলেও দূর্গাপুর স্টেশনে নেমেও যেতে পারবেন। বাঁকুড়া স্টেশন বা বাসস্ট্যান্ড থেকে বাস ও গাড়ি পাবেন। দূর্গাপুর থেকেও গাড়ি পেয়ে যাবেন, অথবা বাঁকুড়া চলে আসুন।

বাসে যেতে চাইলে ধর্মতলা থেকে মুকুটমনিপুরের, অথবা গোড়াবাড়ির বাস পাবেন। আর তা না হলে বাঁকুড়ার বাস তো আছেই।

আর যদি গাড়ি বা বাইকে যেতে চান, তাহলে দূর্গাপুর এক্সপ্রেস হাইওয়ে ধরাই ভালো। কোলকাতা থেকে কোনা এক্সপ্রেস রোড হয়ে দূর্গাপুর এক্সপ্রেস হাইওয়ে। সোজা দূর্গাপুরের মুচিপাড়া। ওখান থেকে বাঁ দিকে ঘুরে বাঁকুড়ার রাস্তা। বাঁকুড়ার ধলডাঙ্গা দিয়ে সোজা খাতড়া হয়ে মুকুটমনিপুর। রাস্তা নিয়ে চিন্তা নেই। দারুণ রাস্তা।

একটা কথা বলে রাখি। মুকুটমনিপুর গেলে সঙ্গে গাড়ি রাখার চেষ্টা করবেন। কারন ওখানে মোটর চালিত ভ্যান, আর কিছু অটো পাবেন। তাও সকালের দিকে, আর বিকেলে। তাই এদিক ওদিক যেতে চাইলে গাড়ি থাকলে সুবিধাজনক।



কোথায় থাকবেনঃ

মুকুটমনিপুরের সবথেকে ভালো জায়গায় আছে ইয়ুথ হোস্টেল। একেবারে ড্যাম যেখান থেকে শুরু হচ্ছে, সেখানেই।

WBFDC এর প্রকৃতি ভ্রমন কেন্দ্র অনবদ্য। সোনাঝুরি এর নাম। পাহাড়ের ওপরে বিশাল জায়গা নিয়ে গড়ে উঠেছে।

এছাড়া আছে পিয়ারলেস ইন, আম্রপালি, অপরাজিতা সহ অনেক হোটেল আর রিসর্ট। আছে রেস্তোরাঁও।

ইয়ুথ হোস্টেল বুকিং এর জন্য দেখুন www.youthhostelbooking.wb.gov.in

WBFDC এর জন্য দেখুন www.wbfdc.com

Mukutmanipur, one of the popular tourist destination of Bankura,is a popularly known as weekend destination near kolkata,

Youth Hostel

কি কি দেখবেনঃ

১. মুকুটমনিপুরের প্রধান আকর্ষণ হল ৭ কিমি বিস্তৃত কংসাবতী ড্যাম। দু পাশের অপূর্ব সুন্দর সব দৃশ্য আপনাকে মুগ্ধ করবে। সূর্যাস্ত তো দেখার মতো। এই ড্যাম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম। আর এর মুখ্য বৈশিষ্ট্য হলো, এটি মানুষের তৈরি, মাটির ড্যাম। তাই দেখার সময় এটা ভাবলেই বিষ্ময় লাগবে।

২. প্রায় ঘন্টা তিনেকের একটি নৌকোবিহার আপনার মন প্রাণ ভরিয়ে দেবে। নৌকোবিহার শুরু হয় ড্যামের এদিক থেকেই, যেদিকে আপনি থাকবেন।

৩. নৌকা করে ওপর পারে গেলে দেখতে পাবেন বনপুকুরিয়ে ডিয়ার পার্ক। হরিণের সংখ্যা ভালোই এখানে।

৪. ড্যামের ওপরেই রাস্তায় পাবেন জৈন তীর্থঙ্কর পরেশনাথ বা পার্শ্বনাথের মন্দির ও মূর্তি। প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন এটি। ড্যামের খনন কার্য্যের সময় পাওয়া যায়।



৫. একটি আছে লোহা পাহাড়। দেখলেই বুঝবেন লৌহ আকরিকের আস্ত পাহাড় এটি।

৬. আর আছে ৪ কিমি দূরে প্রাচীন শহরের চিহ্ন। অম্বিকানগর। যেখানকার রানী আজও বেঁচে আছেন মুকুটমনিপুরের নামের মধ্যে। এখানে আছে রাজবাড়ী, আছে অম্বিকার মন্দির। সন্ধ্যায় এখানে আরতি দেখতে আসতে পারেন।

৭. এখানেই একটু গোড়াবাড়ির দিকে এগোলে, বা ড্যাম থেকে নীচে নামলে পাবেন শবর দের গ্রাম।

৮. মুকুটমনিপুর থেকে বেরিয়ে এসে ডান দিকে গেলে, মানে যে রাস্তাটা খাতড়া থেকে আসছে, তা ধরে এগোলে দারুণ তিনখানা ভিউ পয়েন্ট পড়বে। তারপর পৌছবেন জঙ্গলের মধ্যে এক ওয়াচটাওয়ারে। সুতান এই জায়গার নাম। সুতান আপনার মনে পাকাপাকি জায়গা করে নেবে।



৯. আরো এগোলে আসবে মনভোলানো ঝিলিমিলি। সময় থাকলে এখানে একরাত থাকুন। রিমিল রিসর্ট আছে ঝিলিমিলিতে।

১০. দোলের সময় গেলে মুকুটমনিপুরে পাহাড়ের ওপারে সাঁওতালি মেলা দেখতে ভুলবেন না। মাঝ রাতে হ্যাজাকের আলোয় ছৌ নাচ, আর তার সাথে মহুয়ার নেশা, সে কি ভোলা যায়!

Mukutmanipur, one of the popular tourist destination of Bankura,is a popularly known as weekend destination near kolkata,

Wbfdc Sonajhuri Resort, Mukutmanipur

পূর্ণিমার রাত দেখে মুকুটমনিপুর ঘুরে আসুন। একটু রাতে যখন ড্যামের ওপরে নিরিবিলিতে বসবেন, মাথার ওপর গোল চাঁদ, ঠান্ডা হাওয়া, সামনে বিশাল জলরাশি, শুনতে পাবেন অনেক দূর থেকে হাওয়ায় ভেসে আসছে মৃদুমন্দ মাদলের আওয়াজ। কোনোও এক সাঁওতালি গ্রাম থেকে। আর দেখবেন আপনার ভেতরে প্রকৃতি প্রেমিক মনটাও আপনার অগোচরেই তালে তাল মেলাতে শুরু করে দিয়েছে।

The content of the blog has been written by Dr. Shiladitya Pujari, Professor, Department of Information Technology, Burdwan University. The photographs is also clicked by the writer.

 

 
Advertisement:



Trackbacks/Pingbacks

  1. How to Plan your holidays in 2019 | Tour Planner Blog - […] Read more here […]

Submit a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Advertisement